কু-যুক্তি, কু-স্বভাব ও ছাগল সমাজ (জানুয়ারি ২০২০)

এক

আমরা খুবই ধর্মতাত্তিক হিপোক্রেট একটা জাত। কি চাই নিজেরাও জানি না।

ইরান যুক্তরাষ্ট্রর মারামারিতে ইরানের পক্ষে। ইউএসএসের কেউ মরলে খুব খুশি।
– কারণ?
– ইরান ইসলাম প্রধান একটা দেশ।
কিন্তু দিন শেষে এরা ইউএসএর ভিসাতে এপ্লাইয়ের জন্য লাইন ধরে।
– কারণ?
– নীরবতা।
ইরানকে সব চাইতে বেশি অপছন্দ করে সৌদি আরব। তারা ইরানিদের বলে টেরোরিস্ট।
আমাদের মানুষজন তখন আবার সৌদের দেশের পক্ষে।
– কারণ?
– আরব দ্য্যাশে নবী জন্মাইছিলেন। কাবা আছে।

কিন্তু আপনি যদি জিজ্ঞাস করেন,
– ইউএসএ আর আরব তো এলাই। একসাথে ইরানের বিরুদ্ধে লড়ে। তাইলে ইউএসকে সাপোর্ট দেন না কিন্তু সৌদিরে দেন কেন?
উত্তরে শুনবেন,
– তুঁই নাস্তিক।

বড্ড জ্বালাতন।

 

 

দুই

“আমি হিন্দু এবং আমি ভারতের রাষ্ট্রধর্ম হিন্দু হোক চাই না।”

এমন ধরণের প্ল্যাকার্ড ধরা বা বক্তব্য দেয়া ভারতীয়দের ছবি ও নিউজ শেয়ার দিয়ে ফেসবুক আর অনলাইন পারার বাংলাদেশিরা ভাসায় ফেলছে। ধর্ম ভিত্তিক রাষ্ট্রে চোরবাটপার আর রেসিস্টরা কি করে ধর্ম ব্যবহার করে সব কিছু নিয়ন্ত্রণ আর সমস্যা তৈরি করবে সেইসব নিয়ে রচনা লিখছে।

কিন্তু কতদিন আগে এবং কিছুদিন পরে তাদের শেয়ারে ছিলো বা থাকবে –

“আমি মুসলিম এবং আমি বাংলাদেশ সহ দুনিয়ার সব দেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম চাই।”

আমাদের কি আত্নমর্যাদা বইলা কিছু নাই! 

নিশ্বাসে বিশ্বাসে হিপোক্রেসি। 

জাতও একটা।

Leave a Reply

Close Menu