জাফর ইকবাল স্যার, আপনি কলাম লেখা থেকে অবসর নিন, ইদানিং আপনার আর প্যারাডক্সিকাল সাজিদ মার্কা যুক্তি একই রকম

জাফর ইকবাল স্যার সাম্প্রতিক ‘বিভ্রান্ত হওয়া না হওয়া‘ নামের একটি কলামে বলেছেন, “এখন যখন বয়স হয়েছে তখন আবিষ্কার করছি কোনো বিষয়েই আর পুরোপুরি নিশ্চিত হতে পারি না। কোনো কিছুর পক্ষে যখন কেউ কিছু বলে তখন মনে হয় এটাই ঠিক, আবার যখন বিপক্ষে কেউ যুক্তি দেয় তখন নিজের মাথা চুলকাই এবং মনে হয়, নাহ্ এটাই মনে হচ্ছে ঠিক। কোনটা ঠিক আর কোনটা বেঠিক সেটা নিয়ে নিজের ভেতরেই তাল গোল পাকিয়ে যায়।”

জ্বি স্যার সেটা বোঝা যাচ্ছে। তাই প্লিজ এই বিভ্রান্তি নিয়ে আপাতত আপনি নিজের অবস্থান আরো ভঙ্গুর করা বন্ধ করেন কলামের মাধ্যমে।

কেন বলছি এই কথা? ওয়েল স্যারের এই কলামে মেনশন করা আর ভিতরে লুকিয়ে থাকা অর্থ দেখলেই তা পরিষ্কার হয়। যেমন –

 

ক.

ভারত – আমেরিকার গণতন্ত্রর নিয়ে প্রশ্ন করেছেন যে গণতন্ত্রর জন্য সাম্প্রদায়িক শক্তি ক্ষমতায় এসেছে। সেই প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ সম্পর্কে একটা লুকানো ম্যাসেজ দিয়ে দিয়েছেন এই বলে যে ”এখনো নির্বাচন নিয়ে কতো রকম অভিযোগ।” যেন এই অভিযোগ থাকা উচিত নয়। সাম্প্রদায়িক শক্তিকে ক্ষমতায় আসতে না দিলে বা না চাইলে এইসব নির্বাচন নিয়ে কথা না বলাই ভালো, অভিযোগ না করাই ভালো।

কিন্তু গণতন্ত্রর মূল বৈশিষ্ট হচ্ছে মেজরিটি যা চাচ্ছে তাই তাদের দেয়া। মানে কেউ যদি সাম্প্রদায়িক হতে চায় তাহলে তারা সাম্প্রদায়িক শক্তির শাসনই ডিজার্ভ করে। যেমন ইয়োরপ অনেক লিবারাল। কারণ জনগন লিবারাল শক্তির শাসন চায়। সো জনগনের চাওয়া ওভারলুক করে নির্বাচন সঙ্ক্রান্ত কোরাপশন জাস্টিফাই করা কি ধরনের বিভ্রান্ত হতে পারে সেইটা পরিষ্কার না।

তা ছাড়া বাংলাদেশের সমাজ ব্যবস্থা ও শাসক সমাজ কোনটাই যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির জন্য কাজ করছে তাও নয়। নিজেদের মধ্যে ছড়িয়ে আছে গোড়ামি!

 

খ.

আপনি উল্লেখ করেছেন ” সুইডেনে ধর্ষণের হার আমাদের দেশের ধর্ষণের হার থেকে ছয় সাত গুণ বেশি।”

এই ধরণের প্যারাডক্সিকাল সাজিদ মার্কা যুক্তি ইদানিং আপনার কাছ থেকে শুনতে হচ্ছে যা কখনো ভাবিনি। এই ধরণের যুক্তির ভুল ধরা যদিও ছোটবেলার প্রথম পাঠ যাদের কাছ থেকে পেয়েছি তার মাঝে আপনিও থাকবেন, কিন্তু এটা কল্পনা করা আজকাল কষ্টকর।

আপনি যেখান থেকে এই তথ্য টুকেছেন সেইটার মাঝে একটা শর্ত দেয়া আছে সেটা হচ্ছে

“Number of rape incidents per 100,000 citizens in different countries. Figures do not take into account rape incidents that go unreported to the police.”

মানে সুইডেনে পুলিশের কাছে রিপোর্ট করা ধর্ষনের ঘটনা অনেক বেশি বাংলাদেশের চাইতে। এর মানে এই না যে বাংলাদেশের ধর্ষনের ঘটনা সুইডেনের চাইতে কম। কারণ আমাদের মহান পুলিশেরা ধর্ষনের রিপোর্ট নেয় না। আর মেয়েরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই চেপে যায় সমাজে টিকতে পারবে না বলে। ওইদিকে স্যান্ডেনেভিয়ান দেশ গুলোতে স্ত্রী স্বামীর বিরুদ্ধেও ধর্ষণের অভিযোগ আনতে পারে কারণ ওরা অনেক বেশি সোশ্যাল সিকিউরিটি পায়। যা আমাদের কল্পনাতেও পাওয়া যায় না।

আপনার এইরকম ‘মার্কামারা যুক্তি’ শুধু আপনাকে এই মুহুর্তে হাসির পাত্র করে ফেলছে আর কোন একটা রাজনৈতিক দলের মুখপাত্র হিসেবে পরিণত করছে এই জিনিসটা সাধারণ মানুষের মাঝে আপাতত আর কোন বিভ্রান্তি নেই।

 

গ.

আপনি গ্যাসের দাম বৃদ্ধির যে প্রতিবাদ চলছে সেই নিয়ে আরো বলেছেন, “দেশের মাত্র বিশ শতাংশ মানুষ সরাসরি রান্নাঘরে গ্যাস ব্যবহার করার সুযোগ পায়। আশি ভাগ মানুষের কাছ গ্যাস পৌঁছায়নি।”

“দেশের শতকরা বিশ ভাগ সুবিধাভোগী মানুষের জীবনযাত্রার জন্য আমার কী দুর্ভাবনা করায় প্রয়োজন আছে?”

খুব হাস্যকর ও পরস্পর বিরোধী যুক্তি। যেমন আগে হিডেন ম্যাসেজে বলেছেন সাম্প্রদায়িক শক্তি ঠেকাতে নির্বাচনের এইদিস সেইদিক নিয়ে কথা বলা দরকার কি। কিন্তু অধিকাংশ মানুষ যদি সাম্প্রদায়িক শক্তি চায় তাহলে তাদের তা দিতে সমস্যা কোথায়। আপনার দূর্ভাবনা করা প্রয়োজন কি! আর যদি প্রয়োজন থাকে মাইনরিটীর জন্য তাহলে অবশ্যি গ্যাসের দাম কমানোর যে প্রতিবাদ চলছে সেটাতেও আপনার সমর্থন থাকা উচিত। তবে মজার ব্যপার হচ্ছে, দুর্নীতি কমলে আর কারখানা গুলোতে গ্যাসের দাম বাড়ালে (যদি বাড়াতেই হয়) সমস্যাটুকু মিটে যায়। নরমাল একটা ছোট সার কারখানা যে গ্যাস পোড়ায় একদিনে সেটা দিয়ে কয়েকপ্টা মহল্লা এক মাস সারাদিন জ্বালিয়েও শেষ করতে পারবে না। আর দামের বদলে মিটার বসিয়ে রেট দিয়ে দিলেও অনেক অপচয় রোধ হবে। এইসব নিয়ে কথা বলা গেলেও সেইদিকে আপনার দৃষ্টি নেই। খুবই দুক্ষজনক বিষয়।

___

যা হোক আরো বড় হয়ে যাচ্ছে লেখা। ইচ্ছে করছে না তাই আপাতত অফ যাচ্ছি।

কিন্তু সত্য বলতে কি, আপনার এই বয়সকালে প্যারাডক্সিক্যাল সাজিদটাইপের যুক্তি দেখলে আসলে কষ্টই হয়। আপনার এই ধরণের কলাম লেখা থেকে সম্পূর্ণ রিটায়ারমেন্টে যাওয়াই আসলে ভালো।

স্যার আপনি কলাম লেখা থেকে রিটায়ারমেন্ট নিয়ে নিন, প্লিজ। আপনার প্রতি পুষেরাখা শ্রদ্ধাটা অটুট থাকুক।

 

 

Leave a Reply

Close Menu